• Male
  • Married
  • 05/05/1987
  • Followed by 82 people
Recent Updates
  • মেয়েদের ফিতনা থেকে সালাফরা যেভাবে নিজেদের আত্মরক্ষা করতেন!

    মোহাম্মদ বিন সীরীন রাহিমাহুল্লাহ বলেন,
    আল্লাহর কসম! আব্দুল্লাহর আম্মু (তার স্ত্রী) ছাড়া আমি অন্য কোন মহিলার দিকে দৃষ্টি দেইনি।
    জাগ্রতাবস্থায়ও না আর ঘুমন্তাবস্থায়ও না।
    স্বপ্নে আমি কোন মহিলাকে দেখলে মনে করছি, এটাতো আমার জন্য হালাল না। অতঃপর তার থেকে আমার দৃষ্টি ফিরিয়ে নিয়েছি। "সাহমু ইবলিস ওয়া কাওছিহ"
    .
    রাবী বিন খায়ছাম রাহিমাহুল্লাহ তার দৃষ্টিকে অবনত রাখতেন। আর মহিলাদের পাশ দিয়ে অতিক্রম কালে নিজের চোখকে একদম নীচে নামিয়ে রাখতেন, তখন মহিলারা মনে করতো তিনি অন্ধ। অতঃপর তারা আল্লাহর কাছে অন্ধত্ব থেকে বাঁচার জন্য আশ্রয়প্রার্থনা করত। "যাম্মুল হাওয়া, ৮০"
    মেয়েদের ফিতনা থেকে সালাফরা যেভাবে নিজেদের আত্মরক্ষা করতেন! মোহাম্মদ বিন সীরীন রাহিমাহুল্লাহ বলেন, আল্লাহর কসম! আব্দুল্লাহর আম্মু (তার স্ত্রী) ছাড়া আমি অন্য কোন মহিলার দিকে দৃষ্টি দেইনি। জাগ্রতাবস্থায়ও না আর ঘুমন্তাবস্থায়ও না। স্বপ্নে আমি কোন মহিলাকে দেখলে মনে করছি, এটাতো আমার জন্য হালাল না। অতঃপর তার থেকে আমার দৃষ্টি ফিরিয়ে নিয়েছি। "সাহমু ইবলিস ওয়া কাওছিহ" . রাবী বিন খায়ছাম রাহিমাহুল্লাহ তার দৃষ্টিকে অবনত রাখতেন। আর মহিলাদের পাশ দিয়ে অতিক্রম কালে নিজের চোখকে একদম নীচে নামিয়ে রাখতেন, তখন মহিলারা মনে করতো তিনি অন্ধ। অতঃপর তারা আল্লাহর কাছে অন্ধত্ব থেকে বাঁচার জন্য আশ্রয়প্রার্থনা করত। "যাম্মুল হাওয়া, ৮০"
    7
    0 Comments 0 Shares
  • অতি দ্রুত ইসলাম জিতবেই,
    আমাকে নিয়ে অথবা আমাকে ছাড়া । ✊✊
    কিন্তু ইসলাম ছাড়া আমি হেরে যাবো অথবা হারিয়ে যাবো😞
    == সুতরাং হে আমার রব, আপনি আমাকে ধর্যের সহীত প্রচুর পরিমাণ জ্ঞান অর্জন করিয়ে, আপনার পথে আমৃত্যু পর্যন্ত দৃঢ় রাখুন, ইয়া রব....
    অতি দ্রুত ইসলাম জিতবেই, আমাকে নিয়ে অথবা আমাকে ছাড়া । ✊✊ কিন্তু ইসলাম ছাড়া আমি হেরে যাবো অথবা হারিয়ে যাবো😞 == সুতরাং হে আমার রব, আপনি আমাকে ধর্যের সহীত প্রচুর পরিমাণ জ্ঞান অর্জন করিয়ে, আপনার পথে আমৃত্যু পর্যন্ত দৃঢ় রাখুন, ইয়া রব....
    4
    0 Comments 0 Shares
  • ‎রাসুলুল্লাহ ﷺ–এর হাদিস কতই না জীবন্ত! আমাদের জীবনের সাথে কতই না প্রাসঙ্গিক! রাসুলুল্লাহ ﷺ বলেছেন : “দাজ্জালের আবির্ভাবের আগের কয়েকটি বছর হবে প্রতারণার বছর। এসময় সত্যবাদীকে মিথ্যাবাদী আর মিথ্যাবাদীকে সত্যবাদী আখ্যায়িত করা হবে। দুর্নীতিবাজকে মনে করা হবে আমানতদার, আমানতদারকে দুর্নীতিবাজ। (এসময়) মানুষের মধ্য থেকে ‘রুয়াইবিজা’ কথা বলবে। জিজ্ঞেস করা হলো, ‘রুয়াইবিজা’ কী? রাসুলুল্লাহ ﷺ বললেন, ‘অপরাধপ্রবণ লোকেরা জনসাধারণের বিষয়-আশয় নিয়ে কথা বলবে।’” [ মুসনাদু আহমদ : ১৩৩২ ]‎
    ‎রাসুলুল্লাহ ﷺ–এর হাদিস কতই না জীবন্ত! আমাদের জীবনের সাথে কতই না প্রাসঙ্গিক! রাসুলুল্লাহ ﷺ বলেছেন : “দাজ্জালের আবির্ভাবের আগের কয়েকটি বছর হবে প্রতারণার বছর। এসময় সত্যবাদীকে মিথ্যাবাদী আর মিথ্যাবাদীকে সত্যবাদী আখ্যায়িত করা হবে। দুর্নীতিবাজকে মনে করা হবে আমানতদার, আমানতদারকে দুর্নীতিবাজ। (এসময়) মানুষের মধ্য থেকে ‘রুয়াইবিজা’ কথা বলবে। জিজ্ঞেস করা হলো, ‘রুয়াইবিজা’ কী? রাসুলুল্লাহ ﷺ বললেন, ‘অপরাধপ্রবণ লোকেরা জনসাধারণের বিষয়-আশয় নিয়ে কথা বলবে।’” [ মুসনাদু আহমদ : ১৩৩২ ]‎
    7
    0 Comments 0 Shares
  • ♦️সুন্নাহর আলোকে কখন কি বলবেন?
    🕳️ ১৫ টি কাজের গুরুত্বপূর্ণ ১৫ টি সুন্নাহ।
    (উইথ রেফারেন্স)।
    ১. ভালো কোন কিছু খাওয়া বা পান করার সময়, কোন কিছু লেখা বা পড়ার সময়, কোন কাজ শুরু করার সময় ‘বিসমিল্লাহ’ বলে শুরু করে । -(বুখারীঃ ৫৩৭৬)
    ২. কিছু খাওয়া বা পান করা শেষে, কোন শুভ সংবাদ শোনা হলে, কেউ কেমন আছো জিজ্ঞেস করলে- তার জবাবে ‘আলহামদুলিল্লাহ’ বলা। (ইবনে মাজাহঃ ৩৮০৫)
    ৩. কারো হাঁচি আসলে ”আলহামদু লিল্লাহী ‘আলা কুল্লী হা-ল” বলা। কমপক্ষে "আল-হামদুলিল্লাহ" বলা।
    (জামে আত তিরমিযীঃ ২৭৪১)
    ৪. কোন হাঁচি দাতার ‘আলহামদুলিল্লাহ’ বলতে শুনলে- ‘ইয়ারহামুকাল্লাহ’ বলা। -(বুখারীঃ ৬২২৪)
    ৫. আল্লাহ তা’আলার শ্রেষ্ঠত্ব, মহত্ব বা বড়ত্বের কোন কৃতিত্ব দেখলে কিংবা শুনলে ‘আল্লাহু আকবর’ বলা । স্বাভাবিকের মধ্যে কোন ব্যতিক্রম দেখলে কিংবা আশ্চর্য ধরণের কোন কথা শুনলে ‘সুবহানাল্লাহ’ বলা। -(বুখারীঃ ৬২১৮)
    ৬. ভালো যে কোন কিছু বেশি বা ব্যতিক্রম দেখলে ‘মা-শা আল্লাহ’ বলা। -(মুসলিমঃ ৩৫০৮)
    ৭. ভবিষ্যতে কোন কিছু করবে বললে ‘ইন শা আল্লাহ’ বলা । -(আল কাহাফঃ ২৩-২৪)
    ৮. কোন বাজে কথা শুনলে কিংবা আল্লাহর আজাব ও গজবের কথা শুনলে বা মনে পড়লে “না’উজু বিল্লাহ” বলা। -(বুখারীঃ ৬৩৬২)
    ৯. কোন বিপদের কথা শুনলে কিংবা কোন খারাপ বা অশুভ সংবাদ শুনলে, কোন কিছু হারিয়ে গেলে, কোন কিছু চুরি হয়ে গেলে, কোন কষ্ট পেলে ‘ইন্না লিল্লাহ’ বলা। –(মুসলিমঃ ২১২৬)
    ১০. কথা প্রসঙ্গে কোন গুনাহর কথা বলে ফেললে, ‘আস্তাগফিরুল্লাহ’ বলা । -(সূরা মুহাম্মদঃ ১৯)
    ১১. উপরে উঠার সময় ‘আল্লাহু আকবার’ বলা এবং নিচে নামার সময় ‘সুবহানাল্লাহ’ বলা। -(বুখারীঃ ২৯৯৩)
    (সিড়ি/লিফটে উপরে ও নীচে উঠানামার আমল)
    ১২. নিশ্চিতভাবে না জেনে কোন বিষয়ে কিছু বললে, কথা শেষে ‘ওয়াল্লাহু আ'লাম বলা। -(বুখারীঃ ৫৫৭০)
    ১৩. কেউ কিছু দিলে কিংবা কারো মাধ্যমে কোন কাজ হলে তার বদলে শুকরিয়া জ্ঞাপনে ‘জাযাকাল্লাহু খাইরান’ বলা। -(বুখারীঃ ৩৩৬)
    ১৪. কোন কিছু জবেহ করার সময় ‘বিসমিল্লাহী ওয়া আল্লাহু আকবর’ বলা। -(মুসলিমঃ ৫০৮৮)
    ১৫. কোন বিজয় লাভ করলে কিংবা বিজয় লাভের আশায় উচ্চকন্ঠ আকুতিভরা ডাক দিলে ‘আল্লাহু আকবর’ বলা । -(বুখারীঃ ৬১০)

    🛑কিছু কথার সংক্ষিপ্ত ব্যাখ্যা।
    ✔ মাশা আল্লাহ:
    মাশা আল্লাহ শব্দের অর্থ, আল্লাহ যেমন চেয়েছেন। এটি আল হামদুলিল্লাহ শব্দের মতোই ব্যবহৃত হয়ে থাকে। অর্থাৎ যে কোনও সুন্দর এবং ভালো ব্যাপারে এটি বলা হয়। যেমন, মাশা আল্লাহ তুমি তো অনেক বড় হয়ে গেছো।

    ✔নাউযুবিল্লাহ:
    নাউযুবিল্লাহ শব্দের অর্থ, আমরা মহান আল্লাহর কাছে এ থেকে আশ্রয় চাই। যে কোনও মন্দ ও গুনাহের কাজ দেখলে তার থেকে নিজেকে আত্ম-রক্ষার্থে এটি বলা হয়ে থাকে।

    ✔ আসতাগফিরুল্লাহ:
    আসতাগফিরুল্লাহ শব্দের অর্থ আমি মহান আল্লাহর কাছে ক্ষমা চাই। অনাকাঙ্ক্ষিত কোন অন্যায় বা গুনাহ হয়ে গেলে আমরা এটি বলবো।

    ✔লা হাওলা ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ: অর্থ; মহান আল্লাহর সাহায্য ও সহায়তা ছাড়া আর কোন আশ্রয় ও সাহায্য নেই। শয়তানের কোন ওয়াসওয়াসা বা দুরভিসন্ধিমূলক কোন প্রতারণা থেকে বাঁচার জন্য এটি পড়া উচিত।

    ✔ কারো সাথে দেখা হলে- হাই, হ্যালো না বলে বলুন- আস সালামু আলাইকুম (আপনার উপর মহান আল্লাহর শান্তি বর্ষিত হোক)
    ♦️সুন্নাহর আলোকে কখন কি বলবেন? 🕳️ ১৫ টি কাজের গুরুত্বপূর্ণ ১৫ টি সুন্নাহ। (উইথ রেফারেন্স)। ১. ভালো কোন কিছু খাওয়া বা পান করার সময়, কোন কিছু লেখা বা পড়ার সময়, কোন কাজ শুরু করার সময় ‘বিসমিল্লাহ’ বলে শুরু করে । -(বুখারীঃ ৫৩৭৬) ২. কিছু খাওয়া বা পান করা শেষে, কোন শুভ সংবাদ শোনা হলে, কেউ কেমন আছো জিজ্ঞেস করলে- তার জবাবে ‘আলহামদুলিল্লাহ’ বলা। (ইবনে মাজাহঃ ৩৮০৫) ৩. কারো হাঁচি আসলে ”আলহামদু লিল্লাহী ‘আলা কুল্লী হা-ল” বলা। কমপক্ষে "আল-হামদুলিল্লাহ" বলা। (জামে আত তিরমিযীঃ ২৭৪১) ৪. কোন হাঁচি দাতার ‘আলহামদুলিল্লাহ’ বলতে শুনলে- ‘ইয়ারহামুকাল্লাহ’ বলা। -(বুখারীঃ ৬২২৪) ৫. আল্লাহ তা’আলার শ্রেষ্ঠত্ব, মহত্ব বা বড়ত্বের কোন কৃতিত্ব দেখলে কিংবা শুনলে ‘আল্লাহু আকবর’ বলা । স্বাভাবিকের মধ্যে কোন ব্যতিক্রম দেখলে কিংবা আশ্চর্য ধরণের কোন কথা শুনলে ‘সুবহানাল্লাহ’ বলা। -(বুখারীঃ ৬২১৮) ৬. ভালো যে কোন কিছু বেশি বা ব্যতিক্রম দেখলে ‘মা-শা আল্লাহ’ বলা। -(মুসলিমঃ ৩৫০৮) ৭. ভবিষ্যতে কোন কিছু করবে বললে ‘ইন শা আল্লাহ’ বলা । -(আল কাহাফঃ ২৩-২৪) ৮. কোন বাজে কথা শুনলে কিংবা আল্লাহর আজাব ও গজবের কথা শুনলে বা মনে পড়লে “না’উজু বিল্লাহ” বলা। -(বুখারীঃ ৬৩৬২) ৯. কোন বিপদের কথা শুনলে কিংবা কোন খারাপ বা অশুভ সংবাদ শুনলে, কোন কিছু হারিয়ে গেলে, কোন কিছু চুরি হয়ে গেলে, কোন কষ্ট পেলে ‘ইন্না লিল্লাহ’ বলা। –(মুসলিমঃ ২১২৬) ১০. কথা প্রসঙ্গে কোন গুনাহর কথা বলে ফেললে, ‘আস্তাগফিরুল্লাহ’ বলা । -(সূরা মুহাম্মদঃ ১৯) ১১. উপরে উঠার সময় ‘আল্লাহু আকবার’ বলা এবং নিচে নামার সময় ‘সুবহানাল্লাহ’ বলা। -(বুখারীঃ ২৯৯৩) (সিড়ি/লিফটে উপরে ও নীচে উঠানামার আমল) ১২. নিশ্চিতভাবে না জেনে কোন বিষয়ে কিছু বললে, কথা শেষে ‘ওয়াল্লাহু আ'লাম বলা। -(বুখারীঃ ৫৫৭০) ১৩. কেউ কিছু দিলে কিংবা কারো মাধ্যমে কোন কাজ হলে তার বদলে শুকরিয়া জ্ঞাপনে ‘জাযাকাল্লাহু খাইরান’ বলা। -(বুখারীঃ ৩৩৬) ১৪. কোন কিছু জবেহ করার সময় ‘বিসমিল্লাহী ওয়া আল্লাহু আকবর’ বলা। -(মুসলিমঃ ৫০৮৮) ১৫. কোন বিজয় লাভ করলে কিংবা বিজয় লাভের আশায় উচ্চকন্ঠ আকুতিভরা ডাক দিলে ‘আল্লাহু আকবর’ বলা । -(বুখারীঃ ৬১০) 🛑কিছু কথার সংক্ষিপ্ত ব্যাখ্যা। ✔ মাশা আল্লাহ: মাশা আল্লাহ শব্দের অর্থ, আল্লাহ যেমন চেয়েছেন। এটি আল হামদুলিল্লাহ শব্দের মতোই ব্যবহৃত হয়ে থাকে। অর্থাৎ যে কোনও সুন্দর এবং ভালো ব্যাপারে এটি বলা হয়। যেমন, মাশা আল্লাহ তুমি তো অনেক বড় হয়ে গেছো। ✔নাউযুবিল্লাহ: নাউযুবিল্লাহ শব্দের অর্থ, আমরা মহান আল্লাহর কাছে এ থেকে আশ্রয় চাই। যে কোনও মন্দ ও গুনাহের কাজ দেখলে তার থেকে নিজেকে আত্ম-রক্ষার্থে এটি বলা হয়ে থাকে। ✔ আসতাগফিরুল্লাহ: আসতাগফিরুল্লাহ শব্দের অর্থ আমি মহান আল্লাহর কাছে ক্ষমা চাই। অনাকাঙ্ক্ষিত কোন অন্যায় বা গুনাহ হয়ে গেলে আমরা এটি বলবো। ✔লা হাওলা ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ: অর্থ; মহান আল্লাহর সাহায্য ও সহায়তা ছাড়া আর কোন আশ্রয় ও সাহায্য নেই। শয়তানের কোন ওয়াসওয়াসা বা দুরভিসন্ধিমূলক কোন প্রতারণা থেকে বাঁচার জন্য এটি পড়া উচিত। ✔ কারো সাথে দেখা হলে- হাই, হ্যালো না বলে বলুন- আস সালামু আলাইকুম (আপনার উপর মহান আল্লাহর শান্তি বর্ষিত হোক)
    7
    1 Comments 0 Shares
  • বিশ্বনবি (সাঃ)বলেনঃ-তুমি যখন নামাযে দাঁড়াবে, তখন জীবনের শেষ নামাজ মনে করে নামাজে দাঁড়াবে।🕋

    [ইবনে 📖মাজাহ-৪১৭০]
    বিশ্বনবি (সাঃ)বলেনঃ-তুমি যখন নামাযে দাঁড়াবে, তখন জীবনের শেষ নামাজ মনে করে নামাজে দাঁড়াবে।🕋 [ইবনে 📖মাজাহ-৪১৭০]
    8
    0 Comments 0 Shares
  • 5
    0 Comments 0 Shares
  • যে ভয় করে সে উপদেশ গ্রহণ করবে। আর তা উপেক্ষা করবে যে চরম হতভাগা।

    🌸 সূরা আল আ'লা ৮৭ঃ১০-১১🌸
    যে ভয় করে সে উপদেশ গ্রহণ করবে। আর তা উপেক্ষা করবে যে চরম হতভাগা। 🌸 সূরা আল আ'লা ৮৭ঃ১০-১১🌸
    5
    0 Comments 0 Shares
  • কিন্তু তোমরা তো দুনিয়ার জীবনকেই প্রাধান্য দাও,
    অথচ আখিরাতই অধিক উৎকৃষ্ট ও স্থায়ী।
    🌸 সূরা আ'লা
    ৮৭ঃ১৬-১৭🌸
    কিন্তু তোমরা তো দুনিয়ার জীবনকেই প্রাধান্য দাও, অথচ আখিরাতই অধিক উৎকৃষ্ট ও স্থায়ী। 🌸 সূরা আ'লা ৮৭ঃ১৬-১৭🌸
    6
    0 Comments 0 Shares
  • মুসলমানদের প্রথম কিবলা আল-আকসা মসজিদে রমজানের প্রথম জুমা আদায় করেন ফিলিস্তিনের জনগণ।
    মুসলমানদের প্রথম কিবলা আল-আকসা মসজিদে রমজানের প্রথম জুমা আদায় করেন ফিলিস্তিনের জনগণ।
    6
    0 Comments 0 Shares
  • আগে দেখতাম রাজনৈতিক দলের লোকেরা পিকেটিং করতে, আর এখন পিকেটিং করে পুলিশে!!
    আগে দেখতাম রাজনৈতিক দলের লোকেরা পিকেটিং করতে, আর এখন পিকেটিং করে পুলিশে!! :)
    5
    1 Comments 0 Shares
More Stories