• 👉🏻Allah Subhanahu Wa Ta'ala said:

    তোমরা যে বিষয়েই মতভেদ কর না কেন, ওর মীমাংসাতো আল্লাহরই নিকট। বলঃ তিনিই আল্লাহ! আমার রাব্ব। আমি নির্ভর করি তাঁর উপর এবং আমি তাঁরই অভিমুখী!
    🟥(সূরা, আশ-শুরা ৪২: আয়াত ১০)

    And in whatsoever you differ, the decision thereof is with Allah (He is the ruling Judge). (And say O Muhammad SAW to these polytheists:) Such is Allah, my Lord in Whom I put my trust, and to Him I turn in all of my affairs and in repentance.
    🟧(QS. Ash-Shuraa 42: Verse 10)

    #Al_Quran
    👉🏻Allah Subhanahu Wa Ta'ala said: তোমরা যে বিষয়েই মতভেদ কর না কেন, ওর মীমাংসাতো আল্লাহরই নিকট। বলঃ তিনিই আল্লাহ! আমার রাব্ব। আমি নির্ভর করি তাঁর উপর এবং আমি তাঁরই অভিমুখী! 🟥(সূরা, আশ-শুরা ৪২: আয়াত ১০) And in whatsoever you differ, the decision thereof is with Allah (He is the ruling Judge). (And say O Muhammad SAW to these polytheists:) Such is Allah, my Lord in Whom I put my trust, and to Him I turn in all of my affairs and in repentance. 🟧(QS. Ash-Shuraa 42: Verse 10) #Al_Quran
    0 Comments 0 Shares
  • 👉🏻Allah Subhanahu Wa Ta'ala said:

    তোমরা যে বিষয়েই মতভেদ কর না কেন, ওর মীমাংসাতো আল্লাহরই নিকট। বলঃ তিনিই আল্লাহ! আমার রাব্ব। আমি নির্ভর করি তাঁর উপর এবং আমি তাঁরই অভিমুখী!
    🟥(সূরা, আশ-শুরা ৪২: আয়াত ১০)

    And in whatsoever you differ, the decision thereof is with Allah (He is the ruling Judge). (And say O Muhammad SAW to these polytheists:) Such is Allah, my Lord in Whom I put my trust, and to Him I turn in all of my affairs and in repentance.
    🟧(QS. Ash-Shuraa 42: Verse 10)

    #Al_Quran
    👉🏻Allah Subhanahu Wa Ta'ala said: তোমরা যে বিষয়েই মতভেদ কর না কেন, ওর মীমাংসাতো আল্লাহরই নিকট। বলঃ তিনিই আল্লাহ! আমার রাব্ব। আমি নির্ভর করি তাঁর উপর এবং আমি তাঁরই অভিমুখী! 🟥(সূরা, আশ-শুরা ৪২: আয়াত ১০) And in whatsoever you differ, the decision thereof is with Allah (He is the ruling Judge). (And say O Muhammad SAW to these polytheists:) Such is Allah, my Lord in Whom I put my trust, and to Him I turn in all of my affairs and in repentance. 🟧(QS. Ash-Shuraa 42: Verse 10) #Al_Quran
    0 Comments 0 Shares
  • আসসালামু'আলাইকুম! প্রিয় দ্বীনি ভাই এবং বোনেরা আপনাদের এমন একটি বিষয়ের সাথে পরিচয় করিয়ে দিবো যা প্রতিটা মুসলিমের জানা অতি জরুরী।

    আমরা এখন এমন সময় অতিবাহিত করছি চতুর্দিকে শুধু ফেতনা আর ফেতনা, যেমন মুর্তি পূজা, মাজার পূজা, ব্যক্তিপূজা, দলপূজা, যত প্রকার ভন্ড ও মাদখালি, রাজনীতি, গণতন্ত্র, সমাজতন্ত্র ইত্যাদি পাবেন।

    আমরা একজন না একজন এদের সাথে সম্পৃক্ত তাই আমাদের জানতে হবে সীরাহ।

    এখানে এবং আরো জানতে পারবেন কুরআনুল কারীমের কোন আয়াত কোন প্রেক্ষাপটে নাযিল হয়েছিল। নবী মুহাম্মদ (সাঃ) সিরাহ বা (জীবনী) নিচের লিংক দেওয়া আছে এখান থেকে জানতে পারেন।

    নবী মুহাম্মদ (সাঃ) সিরাহ বা জীবনী এপিসোড (70)
    প্রতি এপিসোভ 50 মিনিট থেকে 1 ঘন্টা
    👇
    https://youtube.com/playlist?list=PLrEnZj_8pcluLIl0V0JxYBE8pzkXA4FOu

    আবু বক্কর সিদ্দিক রাদিআল্লাহু আনহু জীবনী এপিসোড (17)
    👇https://youtube.com/playlist?list=PLrEnZj_8pclsyO32h45uXpP43DsOGS2v4

    আল-ফারুক উমার উবন আল-খাত্তার রাদিআল্লাহু আনহু জীবনী এপিসোড (18) আপলোড করা হয়েছে পরবর্তী আরো আপলোড হবে।
    👇https://youtube.com/playlist?list=PLrEnZj_8pclumrm5tPGHbAugxAreBl0fa

    পথিকৃৎদের পদচিহ্ন নবীদের জীবনী এপিসোড (33)
    👇https://youtube.com/playlist?list=PLrEnZj_8pcltUMVK4M00U_tkAvhviodPZ

    বর্তমান আমাদের ফেতনা থেকে বাঁচাতে সীরাহ জানা অতি জরুরি যেমন উদাহরণস্বরূপ:

    "আপনি ঘুমন্ত অবস্থায় আপনার ঘরে আগুন লেগেছে এখন বাহির হইয়া জতটানা জরুরি, তাঁর থেকে বেশি জরুরি নবী করীম (সাঃ) সীরাহ জানা।"
    #সীরাহ #আল_কোরআন #Al_Quran
    #Muslim
    আসসালামু'আলাইকুম! প্রিয় দ্বীনি ভাই এবং বোনেরা আপনাদের এমন একটি বিষয়ের সাথে পরিচয় করিয়ে দিবো যা প্রতিটা মুসলিমের জানা অতি জরুরী। আমরা এখন এমন সময় অতিবাহিত করছি চতুর্দিকে শুধু ফেতনা আর ফেতনা, যেমন মুর্তি পূজা, মাজার পূজা, ব্যক্তিপূজা, দলপূজা, যত প্রকার ভন্ড ও মাদখালি, রাজনীতি, গণতন্ত্র, সমাজতন্ত্র ইত্যাদি পাবেন। আমরা একজন না একজন এদের সাথে সম্পৃক্ত তাই আমাদের জানতে হবে সীরাহ। এখানে এবং আরো জানতে পারবেন কুরআনুল কারীমের কোন আয়াত কোন প্রেক্ষাপটে নাযিল হয়েছিল। নবী মুহাম্মদ (সাঃ) সিরাহ বা (জীবনী) নিচের লিংক দেওয়া আছে এখান থেকে জানতে পারেন। নবী মুহাম্মদ (সাঃ) সিরাহ বা জীবনী এপিসোড (70) প্রতি এপিসোভ 50 মিনিট থেকে 1 ঘন্টা 👇 https://youtube.com/playlist?list=PLrEnZj_8pcluLIl0V0JxYBE8pzkXA4FOu আবু বক্কর সিদ্দিক রাদিআল্লাহু আনহু জীবনী এপিসোড (17) 👇https://youtube.com/playlist?list=PLrEnZj_8pclsyO32h45uXpP43DsOGS2v4 আল-ফারুক উমার উবন আল-খাত্তার রাদিআল্লাহু আনহু জীবনী এপিসোড (18) আপলোড করা হয়েছে পরবর্তী আরো আপলোড হবে। 👇https://youtube.com/playlist?list=PLrEnZj_8pclumrm5tPGHbAugxAreBl0fa পথিকৃৎদের পদচিহ্ন নবীদের জীবনী এপিসোড (33) 👇https://youtube.com/playlist?list=PLrEnZj_8pcltUMVK4M00U_tkAvhviodPZ বর্তমান আমাদের ফেতনা থেকে বাঁচাতে সীরাহ জানা অতি জরুরি যেমন উদাহরণস্বরূপ: "আপনি ঘুমন্ত অবস্থায় আপনার ঘরে আগুন লেগেছে এখন বাহির হইয়া জতটানা জরুরি, তাঁর থেকে বেশি জরুরি নবী করীম (সাঃ) সীরাহ জানা।" #সীরাহ #আল_কোরআন #Al_Quran #Muslim
    4
    0 Comments 0 Shares
  • 👉 Allah Subhanahu Wa Ta'ala said:

    কোন মিথ্যা এতে অনুপ্রবেশ করবেনা। সম্মুখ হতেও নয়, পশ্চাৎ হতেও নয়; এটা প্রজ্ঞাময় প্রশংসা আল্লাহর নিকট হতে অবতীর্ণ।
    🏩(সূরা হামিম সিজদাহ ৪১: আয়াত ৪২)

    Falsehood cannot come to it from before it or behind it (it is) sent down by the All-Wise, Worthy of all praise (Allah).
    🟩(QS. Fussilat 41: Verse 42)

    🍂🌨️🌸🌿🍂🌨️🌸🌿🍂🌨️🌸🌿🍂

    #Al_Quran
    👉 Allah Subhanahu Wa Ta'ala said: কোন মিথ্যা এতে অনুপ্রবেশ করবেনা। সম্মুখ হতেও নয়, পশ্চাৎ হতেও নয়; এটা প্রজ্ঞাময় প্রশংসা আল্লাহর নিকট হতে অবতীর্ণ। 🏩(সূরা হামিম সিজদাহ ৪১: আয়াত ৪২) Falsehood cannot come to it from before it or behind it (it is) sent down by the All-Wise, Worthy of all praise (Allah). 🟩(QS. Fussilat 41: Verse 42) 🍂🌨️🌸🌿🍂🌨️🌸🌿🍂🌨️🌸🌿🍂 #Al_Quran
    0 Comments 0 Shares
  • 👉 Allah Subhanahu Wa Ta'ala said:

    কোন মিথ্যা এতে অনুপ্রবেশ করবেনা। সম্মুখ হতেও নয়, পশ্চাৎ হতেও নয়; এটা প্রজ্ঞাময় প্রশংসা আল্লাহর নিকট হতে অবতীর্ণ।
    🏩(সূরা হামিম সিজদাহ ৪১: আয়াত ৪২)

    Falsehood cannot come to it from before it or behind it (it is) sent down by the All-Wise, Worthy of all praise (Allah).
    🟩(QS. Fussilat 41: Verse 42)

    🍂🌨️🌸🌿🍂🌨️🌸🌿🍂🌨️🌸🌿🍂

    #Al_Quran
    👉 Allah Subhanahu Wa Ta'ala said: কোন মিথ্যা এতে অনুপ্রবেশ করবেনা। সম্মুখ হতেও নয়, পশ্চাৎ হতেও নয়; এটা প্রজ্ঞাময় প্রশংসা আল্লাহর নিকট হতে অবতীর্ণ। 🏩(সূরা হামিম সিজদাহ ৪১: আয়াত ৪২) Falsehood cannot come to it from before it or behind it (it is) sent down by the All-Wise, Worthy of all praise (Allah). 🟩(QS. Fussilat 41: Verse 42) 🍂🌨️🌸🌿🍂🌨️🌸🌿🍂🌨️🌸🌿🍂 #Al_Quran
    1
    0 Comments 0 Shares
  • 👉 Allah Subhanahu Wa Ta'ala said:

    যদি শাইতানের কু-মন্ত্রণা তোমাকে প্ররোচিত করে তাহলে আল্লাহকে স্মরণ করবে; তিনি সর্বশ্রোতা, সর্বজ্ঞ।
    🟪(সূরা, হামিম সাজদাহ ৪১: আয়াত ৩৬)

    And if an evil whisper from Shaitan (Satan) tries to turn you away (O Muhammad SAW) (from doing good, etc.), then seek refuge in Allah. Verily, He is the All-Hearer, the All-Knower.
    🟩(QS. Fussilat 41: Verse 36)

    💦🏵️🍇🌿💦🏵️🍇🌿💦🏵️🍇🌿💦

    #Al_Quran
    👉 Allah Subhanahu Wa Ta'ala said: যদি শাইতানের কু-মন্ত্রণা তোমাকে প্ররোচিত করে তাহলে আল্লাহকে স্মরণ করবে; তিনি সর্বশ্রোতা, সর্বজ্ঞ। 🟪(সূরা, হামিম সাজদাহ ৪১: আয়াত ৩৬) And if an evil whisper from Shaitan (Satan) tries to turn you away (O Muhammad SAW) (from doing good, etc.), then seek refuge in Allah. Verily, He is the All-Hearer, the All-Knower. 🟩(QS. Fussilat 41: Verse 36) 💦🏵️🍇🌿💦🏵️🍇🌿💦🏵️🍇🌿💦 #Al_Quran
    1
    0 Comments 0 Shares
  • 👉 Allah Subhanahu Wa Ta'ala said:

    যদি শাইতানের কু-মন্ত্রণা তোমাকে প্ররোচিত করে তাহলে আল্লাহকে স্মরণ করবে; তিনি সর্বশ্রোতা, সর্বজ্ঞ।
    🟪(সূরা, হামিম সাজদাহ ৪১: আয়াত ৩৬)

    And if an evil whisper from Shaitan (Satan) tries to turn you away (O Muhammad SAW) (from doing good, etc.), then seek refuge in Allah. Verily, He is the All-Hearer, the All-Knower.
    🟩(QS. Fussilat 41: Verse 36)

    💦🏵️🍇🌿💦🏵️🍇🌿💦🏵️🍇🌿💦

    #Al_Quran
    👉 Allah Subhanahu Wa Ta'ala said: যদি শাইতানের কু-মন্ত্রণা তোমাকে প্ররোচিত করে তাহলে আল্লাহকে স্মরণ করবে; তিনি সর্বশ্রোতা, সর্বজ্ঞ। 🟪(সূরা, হামিম সাজদাহ ৪১: আয়াত ৩৬) And if an evil whisper from Shaitan (Satan) tries to turn you away (O Muhammad SAW) (from doing good, etc.), then seek refuge in Allah. Verily, He is the All-Hearer, the All-Knower. 🟩(QS. Fussilat 41: Verse 36) 💦🏵️🍇🌿💦🏵️🍇🌿💦🏵️🍇🌿💦 #Al_Quran
    1
    0 Comments 0 Shares
  • 👉Allah Subhanahu Wa Ta'ala said:

    হে মু’মিনগণ! আল্লাহকে ভয় কর এবং সঠিক কথা বল।
    🟩(সূরা, আল আহযাব ৩৩: আয়াত ৭০)

    O you who believe! Keep your duty to Allah and fear Him, and speak (always) the truth.
    🏩(QS. Al-Ahzab 33: Verse 70)

    🌿🌸🌧️🌿🌸🌧️🌿🌸🌧️🌿🌸🌧️🌿

    👉 তাফসীরঃ---📖

    অর্থাৎ, এমন কথা বল, যাতে কোন টেরামি বা বক্রতা নেই, ধোঁকা ও ধাপ্পা নেই। سَدِيدٌ تَسْدِيْدُ السَّهَمِ থেকে গৃহীত। অর্থাৎ, যেমন তীরকে সোজা করা হয় যাতে সঠিক নিশানার উপর লাগে, অনুরূপ তোমাদের মুখ থেকে বের হওয়া কথা ও তোমাদের কাজ-কারবারও সোজা ও সরল হবে। সঠিকতা ও সত্যতা থেকে এক চুল বরাবর তা যেন বিচ্যুত না হয়।

    #Al_Quran
    👉Allah Subhanahu Wa Ta'ala said: হে মু’মিনগণ! আল্লাহকে ভয় কর এবং সঠিক কথা বল। 🟩(সূরা, আল আহযাব ৩৩: আয়াত ৭০) O you who believe! Keep your duty to Allah and fear Him, and speak (always) the truth. 🏩(QS. Al-Ahzab 33: Verse 70) 🌿🌸🌧️🌿🌸🌧️🌿🌸🌧️🌿🌸🌧️🌿 👉 তাফসীরঃ---📖 অর্থাৎ, এমন কথা বল, যাতে কোন টেরামি বা বক্রতা নেই, ধোঁকা ও ধাপ্পা নেই। سَدِيدٌ تَسْدِيْدُ السَّهَمِ থেকে গৃহীত। অর্থাৎ, যেমন তীরকে সোজা করা হয় যাতে সঠিক নিশানার উপর লাগে, অনুরূপ তোমাদের মুখ থেকে বের হওয়া কথা ও তোমাদের কাজ-কারবারও সোজা ও সরল হবে। সঠিকতা ও সত্যতা থেকে এক চুল বরাবর তা যেন বিচ্যুত না হয়। #Al_Quran
    1
    0 Comments 0 Shares
  • 👉Allah Subhanahu Wa Ta'ala said:

    হে মু’মিনগণ! আল্লাহকে ভয় কর এবং সঠিক কথা বল।
    🟩(সূরা, আল আহযাব ৩৩: আয়াত ৭০)

    O you who believe! Keep your duty to Allah and fear Him, and speak (always) the truth.
    🏩(QS. Al-Ahzab 33: Verse 70)

    🌿🌸🌧️🌿🌸🌧️🌿🌸🌧️🌿🌸🌧️🌿

    👉 তাফসীরঃ---📖

    অর্থাৎ, এমন কথা বল, যাতে কোন টেরামি বা বক্রতা নেই, ধোঁকা ও ধাপ্পা নেই। سَدِيدٌ تَسْدِيْدُ السَّهَمِ থেকে গৃহীত। অর্থাৎ, যেমন তীরকে সোজা করা হয় যাতে সঠিক নিশানার উপর লাগে, অনুরূপ তোমাদের মুখ থেকে বের হওয়া কথা ও তোমাদের কাজ-কারবারও সোজা ও সরল হবে। সঠিকতা ও সত্যতা থেকে এক চুল বরাবর তা যেন বিচ্যুত না হয়।

    #Al_Quran
    👉Allah Subhanahu Wa Ta'ala said: হে মু’মিনগণ! আল্লাহকে ভয় কর এবং সঠিক কথা বল। 🟩(সূরা, আল আহযাব ৩৩: আয়াত ৭০) O you who believe! Keep your duty to Allah and fear Him, and speak (always) the truth. 🏩(QS. Al-Ahzab 33: Verse 70) 🌿🌸🌧️🌿🌸🌧️🌿🌸🌧️🌿🌸🌧️🌿 👉 তাফসীরঃ---📖 অর্থাৎ, এমন কথা বল, যাতে কোন টেরামি বা বক্রতা নেই, ধোঁকা ও ধাপ্পা নেই। سَدِيدٌ تَسْدِيْدُ السَّهَمِ থেকে গৃহীত। অর্থাৎ, যেমন তীরকে সোজা করা হয় যাতে সঠিক নিশানার উপর লাগে, অনুরূপ তোমাদের মুখ থেকে বের হওয়া কথা ও তোমাদের কাজ-কারবারও সোজা ও সরল হবে। সঠিকতা ও সত্যতা থেকে এক চুল বরাবর তা যেন বিচ্যুত না হয়। #Al_Quran
    0 Comments 0 Shares
  • 👉 Allah Subhanahu Wa Ta'ala said:

    যেসব জনপদকে আমি ধ্বংস করে দিয়েছি, তার অধিবাসীদের ফিরে না আসা অবধারিত।
    যে পর্যন্ত না ইয়াজুজ ও মাজুজকে বন্ধন মুক্ত করে দেয়া হবে এবং তারা প্রত্যেক উচ্চভুমি থেকে দ্রুত ছুটে আসবে।
    🟥(সূরা, আম্বিয়া ২১: আয়াত ৯৫-৯৬)

    But there is a ban on any population which We have destroyed: that they shall not return,
    Until the Gog and Magog (people) are let through (their barrier), and they swiftly swarm from every hill.
    ⬛(QS. Al-Anbiya 21: Verse 95-96)

    🥀🌾🥀🌾🥀🌾🥀🌾🥀🌾🥀

    👉 তাফসীরঃ --- 📖

    এখানে আল্লাহ তা‘আলা বলছেন, যে জনপদবাসী দুনিয়া থেকে চলে গেছে বা যাদেরকে ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে তাদের পক্ষে দুনিয়াতে আসা অসম্ভব। অর্থাৎ তারা আর তাওবাহ করার সুযোগ পাবে না। কেননা মৃত্যুর পর আমল করার কোন পথ খোলা থাকবে না। অতঃপর আল্লাহ তা‘আলা কাফির-মুশরিকদেরকে সতর্ক করছেন যে, ইয়া‘জূজ-মা‘জূজের বের হওয়ার সময় নিকটবর্তী হয়ে গেছে। ইয়া‘জূজ-মা‘জূজ হল আদম সন্তানের দুটি গোত্র।
    🔴(তাফসীর সা‘দী)

    এলাকাবাসী যখন অভিযোগ করল যে, তারা জমিনে ফেতনা-ফাসাদ সৃষ্টি করছে তখন বাদশা যুল-কারনাইন সীসা ঢালা প্রাচীর দিয়ে তাদেরকে আবদ্ধ করে দিয়েছিলেন। শেষ যুগে ঈসা (عليه السلام)-এর সময়ে তারা সে প্রাচীর ভেঙ্গে বের হয়ে আসবে। তারা এত দ্রুত ছড়িয়ে পড়বে যে, প্রতিটি উঁচু জায়গা হতে ছুটে আসছে মনে হবে। তাদের অনিষ্ট ও অত্যাচারে মুসলিমরা অতিষ্ঠ হয়ে যাবে। এমনকি ঈসা (عليه السلام) মুসলিমদের নিয়ে তুর পাহাড়ে গিয়ে আশ্রয় নেবেন। অতঃপর ঈসা (عليه السلام)-এর অভিশাপে তারা ধ্বংস হয়ে যাবে। তাদের শবদেহের দুর্গন্ধে জমিন দুর্গন্ধময় হয়ে যাবে। শেষ পর্যন্ত আল্লাহ তা‘আলা এক জাতীয় পাখি প্রেরণ করবেন, যারা তাদের লাশগুলো তুলে সমুদ্রে নিক্ষেপ করবে। তারপর প্রবল বৃষ্টি বর্ষণ হবে যাতে সারা পৃথিবী পরিস্কার হয়ে যাবে।
    ⚫(বিস্তারিত ইবনে কাসীর)

    ইয়া‘জূজ-মা‘জূজ বের হওয়ার পর কিয়ামতের সত্য প্রতিশ্রুতি অতি নিকটে এসে পড়বে। আর যখন কিয়ামত অনুষ্ঠিত হয়ে যাবে তখন কিয়ামতের ভয়াবহ অবস্থা দেখে কাফিরদের চক্ষু স্থির হয়ে যাবে। তখন কাফিররা আফসোস করবে এবং বলবে, আমাদের জন্য দুর্ভোগ, আমরা এ বিষয়ে উদাসীন ছিলাম আর আমরা সীমা লঙ্ঘনকারী ছিলাম। কিন্তু তখন আর তাদেরকে কোন সুযোগ দেয়া হবে না।

    👉 আয়াতের তাফসীর:
    🔴১. দুনিয়াতে যাদেরকে পাপের কারণে ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে তাদের পুনরায় ফিরে আসার সুযোগ নেই।
    ⚫২. ইয়া‘জূজ-মা‘জূজ এর আবির্ভাব কিয়ামতের আলামত।
    🔴৩. ঈসা (عليه السلام) ইয়া‘জূজ-মা‘জূজদেরকে দমন করবেন।

    #Al_Quran
    👉 Allah Subhanahu Wa Ta'ala said: যেসব জনপদকে আমি ধ্বংস করে দিয়েছি, তার অধিবাসীদের ফিরে না আসা অবধারিত। যে পর্যন্ত না ইয়াজুজ ও মাজুজকে বন্ধন মুক্ত করে দেয়া হবে এবং তারা প্রত্যেক উচ্চভুমি থেকে দ্রুত ছুটে আসবে। 🟥(সূরা, আম্বিয়া ২১: আয়াত ৯৫-৯৬) But there is a ban on any population which We have destroyed: that they shall not return, Until the Gog and Magog (people) are let through (their barrier), and they swiftly swarm from every hill. ⬛(QS. Al-Anbiya 21: Verse 95-96) 🥀🌾🥀🌾🥀🌾🥀🌾🥀🌾🥀 👉 তাফসীরঃ --- 📖 এখানে আল্লাহ তা‘আলা বলছেন, যে জনপদবাসী দুনিয়া থেকে চলে গেছে বা যাদেরকে ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে তাদের পক্ষে দুনিয়াতে আসা অসম্ভব। অর্থাৎ তারা আর তাওবাহ করার সুযোগ পাবে না। কেননা মৃত্যুর পর আমল করার কোন পথ খোলা থাকবে না। অতঃপর আল্লাহ তা‘আলা কাফির-মুশরিকদেরকে সতর্ক করছেন যে, ইয়া‘জূজ-মা‘জূজের বের হওয়ার সময় নিকটবর্তী হয়ে গেছে। ইয়া‘জূজ-মা‘জূজ হল আদম সন্তানের দুটি গোত্র। 🔴(তাফসীর সা‘দী) এলাকাবাসী যখন অভিযোগ করল যে, তারা জমিনে ফেতনা-ফাসাদ সৃষ্টি করছে তখন বাদশা যুল-কারনাইন সীসা ঢালা প্রাচীর দিয়ে তাদেরকে আবদ্ধ করে দিয়েছিলেন। শেষ যুগে ঈসা (عليه السلام)-এর সময়ে তারা সে প্রাচীর ভেঙ্গে বের হয়ে আসবে। তারা এত দ্রুত ছড়িয়ে পড়বে যে, প্রতিটি উঁচু জায়গা হতে ছুটে আসছে মনে হবে। তাদের অনিষ্ট ও অত্যাচারে মুসলিমরা অতিষ্ঠ হয়ে যাবে। এমনকি ঈসা (عليه السلام) মুসলিমদের নিয়ে তুর পাহাড়ে গিয়ে আশ্রয় নেবেন। অতঃপর ঈসা (عليه السلام)-এর অভিশাপে তারা ধ্বংস হয়ে যাবে। তাদের শবদেহের দুর্গন্ধে জমিন দুর্গন্ধময় হয়ে যাবে। শেষ পর্যন্ত আল্লাহ তা‘আলা এক জাতীয় পাখি প্রেরণ করবেন, যারা তাদের লাশগুলো তুলে সমুদ্রে নিক্ষেপ করবে। তারপর প্রবল বৃষ্টি বর্ষণ হবে যাতে সারা পৃথিবী পরিস্কার হয়ে যাবে। ⚫(বিস্তারিত ইবনে কাসীর) ইয়া‘জূজ-মা‘জূজ বের হওয়ার পর কিয়ামতের সত্য প্রতিশ্রুতি অতি নিকটে এসে পড়বে। আর যখন কিয়ামত অনুষ্ঠিত হয়ে যাবে তখন কিয়ামতের ভয়াবহ অবস্থা দেখে কাফিরদের চক্ষু স্থির হয়ে যাবে। তখন কাফিররা আফসোস করবে এবং বলবে, আমাদের জন্য দুর্ভোগ, আমরা এ বিষয়ে উদাসীন ছিলাম আর আমরা সীমা লঙ্ঘনকারী ছিলাম। কিন্তু তখন আর তাদেরকে কোন সুযোগ দেয়া হবে না। 👉 আয়াতের তাফসীর: 🔴১. দুনিয়াতে যাদেরকে পাপের কারণে ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে তাদের পুনরায় ফিরে আসার সুযোগ নেই। ⚫২. ইয়া‘জূজ-মা‘জূজ এর আবির্ভাব কিয়ামতের আলামত। 🔴৩. ঈসা (عليه السلام) ইয়া‘জূজ-মা‘জূজদেরকে দমন করবেন। #Al_Quran
    0 Comments 0 Shares

No results to show

No results to show